Xossip

Go Back Xossip > Mirchi> Stories> Regional> Bengali > নিষিদ্ধ দ্বীপে অজাচার

Reply Free Video Chat with Indian Girls
 
Thread Tools Search this Thread
  #81  
Old 1 Week Ago
fer_prog fer_prog is offline
sex must be done with love
  Annual Masala Awards: Thread of the Year      
Join Date: 25th August 2009
Location: Dhaka, Bangladesh
Posts: 1,663
Rep Power: 27 Points: 8426
fer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autograph
UL: 576.22 mb DL: 1.19 gb Ratio: 0.47
Quote:
Originally Posted by mjrocks2011 View Post
The story seems bengali version of literotica story "Taboo Island".
একদম ঠিক ধরেছেন, তবে এটা শুধু "Taboo Island" এর বাঙালি ভার্সন নয়, চেষ্টা করবো, যেন তার থেকে ও বেশি কিছু হয়। সাথে তো আপনার আছেনই, কিসের ভয়!

Reply With Quote
  #82  
Old 1 Week Ago
fer_prog fer_prog is offline
sex must be done with love
  Annual Masala Awards: Thread of the Year      
Join Date: 25th August 2009
Location: Dhaka, Bangladesh
Posts: 1,663
Rep Power: 27 Points: 8426
fer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autograph
UL: 576.22 mb DL: 1.19 gb Ratio: 0.47
Quote:
Originally Posted by incest_rana View Post
WAITING
Quote:
Originally Posted by incest_rana View Post
Eagerly waiting!!!
অপেক্ষার ফল খুব মিষ্টি না হলে ও মোটামুটি মিষ্টি তো হয়ই...নিন, চেখে দেখুন...

Reply With Quote
  #83  
Old 1 Week Ago
fer_prog fer_prog is offline
sex must be done with love
  Annual Masala Awards: Thread of the Year      
Join Date: 25th August 2009
Location: Dhaka, Bangladesh
Posts: 1,663
Rep Power: 27 Points: 8426
fer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autograph
UL: 576.22 mb DL: 1.19 gb Ratio: 0.47
Quote:
Originally Posted by sondhar alo View Post
অপেক্ষায় আছি দাদা । জম্পেস আপডেট পাবো আশা করছি । তাড়াহুড়ার কিছু নেই । আপনি ধীরে সুস্থে রসিয়ে রসিয়ে লিখুন

ধন্যবাদ দাদা, সাথেই থাকুন, আপডেট আসবে ২/৩ দিন পর পর। ছোট মুরগির ডিমের সাইজের আপডেট দিতে আমি পছন্দ করি না মোটেই।

Reply With Quote
  #84  
Old 1 Week Ago
fer_prog fer_prog is offline
sex must be done with love
  Annual Masala Awards: Thread of the Year      
Join Date: 25th August 2009
Location: Dhaka, Bangladesh
Posts: 1,663
Rep Power: 27 Points: 8426
fer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autograph
UL: 576.22 mb DL: 1.19 gb Ratio: 0.47
Quote:
Originally Posted by boren raj View Post
দাদা সেই আপডেট দিচ্ছেন দেখি আর হাতের লেখা অসাধারণ এগিয়ে যান সাথে আছি ☺☺☺
ধন্যবাদ দাদা, সাথে থাকুন। আপানদের ভালো লাগলে আমার সব কষ্ট সার্থক।

Reply With Quote
  #85  
Old 1 Week Ago
fer_prog fer_prog is offline
sex must be done with love
  Annual Masala Awards: Thread of the Year      
Join Date: 25th August 2009
Location: Dhaka, Bangladesh
Posts: 1,663
Rep Power: 27 Points: 8426
fer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autograph
UL: 576.22 mb DL: 1.19 gb Ratio: 0.47

মা, একটা ছোট ছেলে ওর মাকে যেভাবে ভালবাসে, সেই রকম না, আমার ভালোবাসাটা...কিভাবে তোমাকে বুঝাবো, আমি জানি না...আমারটা অনেক বেশি গভীর...অনেক অনেক...-আহসান বুঝাতে না পেরে যেন হতাশ হয়ে গেলো। সাবিহা চট করে কিছু বললো না, ওর মনে ভয় ধরে গেলো ছেলের কথা শুনে। সে চায় দ্রুত কথা অন্যদিকে ঘুরিয়ে ফেলতে।

আসলে তোর আব্বু আর আমি, খুব কম চুমু খাই...-সাবিহা একটা বড় নিঃশ্বাস ফেলে ছেলেকে বললো।

কেন, আম্মু? আমার কাছে তো তোমাকে চুমু খেতে অনেক ভালো লেগেছে...-আহসান জানতে চাইলো।

সাবিহার গাল লাল হয়ে গেলো, মনে পড়ে গেলো, একটু আগে কি আগ্রাসী চুমুই না ওরা দুজনে দুজনকে খেয়েছে, তোর আব্বুর বয়স বেড়ে গেছে, এখন বয়স ৫০ এর শেষের দিকে, এই রকম বয়সে মানুষ ধীরে ধীরে এই সব জিনিষের প্রতি আকর্ষণ হারিয়ে ফেলে...এটাই স্বাভাবিক...

কিন্তু তুমি বললে, যে এটা হচ্ছে নিজের ভালোবাসা প্রকাশের একটা পথ, তাই ইচ্ছে হোক বা না হোক, তোমাদের দুজনের তো চুমু খাওয়া উচিত, তাই না?-আহসান ওর মায়ের যুক্তিকে ধরিয়ে দিলো।

হুম, সে তো উচিত, কিন্তু তোর আব্বু আমাকে খুব একটা চুমু দেয় না দেখে আমি ও ওকে চুমু খুব কমই দেই...-সাবিহা চিন্তিত ভঙ্গীতে উত্তর দিলো।

এখন থেকে আমিই তোমাকে এতো চুমু দিবো, যে আআবু যে তোমাকে চুমু দেয় না, সেটা একবার ও তোমার মনে আসবে না...-আহসান ওর মায়ের চোখের দিকে তাকিয়ে বললো।

আমি জানি যে তুই করবি, আচ্ছা, আগের জায়গায় ফিরে আয়, চুমু ছাড়া ও একটা মেয়ে চায় যেন তার যৌন সঙ্গী ওর দুধের উপর বিশেষ নজর দিক, দুধ টিপুক, বসেশ করে দুধের বোঁটাকে আদর করুক, চুমু দিক, ওটাকে চুষে খাক...মেয়েদের দুধের বোঁটা খুব স্পর্শকাতর জিনিষ উত্তেজনা এলেই ও দুটি সব সময় শক্ত হয়ে যায়।-সাবিয়াহ বলতে বলতে থেমে গেলো, সে দেখলো যে আশানের প্যান্টের ভিতরে এখনই তাবু গজিয়ে গেছে, ওর বসে থাকতে অসুবিধা হচ্ছে। শুন, কষ্ট হলে প্যান্ট খুলে ফেল, নেংটো হয়ে বস আমার সামনে-সাবিহা যেন নিএজ্র কানকেই বিশ্বাস করতে পারছে না, সে নিজের ছেলেকে নেংটো হয়ে ওর শক্ত ঠাঠানো লিঙ্গ বের করে ওর সামনে রেকেহ কথা বলতে বছে, ছীল্র শক্ত বড় আর মোটা লিঙ্গটা দেখলেই যে সে কামনা কাতর হয়ে যায়, সে কি ভুলে গেছে, ওর ছীল্র ওর সামনে ওভাবে শক্ত লাঠিটাকে নড়াচড়া করলে ওর পক্ষে খুব খারপা কিছু করে ফেলা অসম্ভব নয়।

তবে আহসান যেন বিস্লা এক সুযোগ পেয়ে গেছে, চট করে প্যান্ট খুলে ওর শক্ত লিঙ্গটাকে এক হাতে মুঠো করে ধরে লিঙ্গের মাথআকে ওর মায়ের দিকে তাক করে রাখল, যেন একটা বড় মিসাইল তাক করে ধরে রেখেছে ওর ছেলে সাবিহার দিকে। ওর গলা শুকিয়ে যেতে লাগলো, কি বলবে সেটা যেন খুঁজে পাচ্ছে না সে, চোখ পুরোপুরি ছেলের উম্মুক্ত কেঁপে উঠা লিঙ্গের দিকে। আহসান ওর মায়ের দিকে তাকিয়ে রইলো।, ওর মা যে আগ্রহ নিয়ে ওর লিঙ্গটাকে দেখছে, সেটা বুঝতে পারলো সে।

আমার খুব ভালো লাগে আম্মু, যদি তোমার সামনে এটাকে বের করে রাখি, এমন না যে, আমি সব সময় তোমার সামনে মাষ্টারবেট করবো বা অন্য কিছু করবো, শুধু বের করে রাখতে ইচ্ছে হয়...তুমি যখন এটার দিকে তাকাও, তখন আমার খুব ভালো লাগে, মনে হয়, এই পৃথিবীতে একজন অন্তত মানুষ আছে, যে আমার লিঙ্গটাকে দেখে, আর কোন দিন কোন মেয়ে আমার লিঙ্গকে দেখে নি তো, সেই জন্যে...-আহসান ওর ভিতরের আবেগকে বুঝিয় বললো, ওর মায়ের সামনে। সাবিহা লক্ষ্য করলো ছেলের লিঙ্গের মাথার ছেঁদা দিয়ে অল্প মদন রস বের হতে শুরু করেছে, এতেই বুঝা যায়, ওর ছেলে কি পরিমাণ উত্তেজিত হয়ে আছে।

ঠিক আছে, এখন থেকে যখন তোর আব্বু থাকবে না আমাদের দুজনের মাঝে, তখন তুই তোর ওটাকে এভাবে বের করে রাখিস...-সাবিহা আবার ও যে কি বলে ফেললো, সে নিজেই বুঝতে পারছে না। আবার ও একটা ভুল বেফাঁস কথা বলে ফেললো সে। ওর মায়ের কথা শুনেই আহসান আরও এগিয় বসলো ওর মায়ের দিকে, যেন মায়ের হাঁটুর সাথে ওর হাঁটু লেগে যায়, আর যদি ওর আম্মু নিজে থেকে ওর লিঙ্গটাকে ধরতে চায়, সেই আশায়। আহসানের লিঙ্গটা আরও কাছে চলে এলো, সাবিহার। আহসান এখন ও ওটাকে ঠিক সাবিহার দিকেই মুখ করে রেখেছে। সাবিহা দেখতে পেলো যে আহসানের লিঙ্গটা যেন কেঁপে কেঁপে উঠছে, আর ওর নিজের পড়নের জাঙ্গিয়াটা ও ওর যোনীর কাছে কেমন টাইট শক্ত হয়ে চেপে বসেছে, এবার বলো আম্মু, মেয়েদের বুকের দুধ নিয়ে বলছিলে...-আহসান ওর মাকে ছিঁড়ে যাওয়া সুতো ধরিয়ে দিলো।

ওহঃ হ্যাঁ, সেটাই বলছিলাম...-সাবিহা ছেলের লিঙ্গ থেকে নিজের চোখ সরিয়ে নিলো বলতে শুরু করলো, মেয়েদের বুকের এই দুধ দুটি কিন্তু শুধু ভালোবাসা করার জন্যে তৈরি করা হয় নাই, এর বিশেষ একটা উদ্দেশ্য আছে, যখন কোন মেয়ের পেটে বাচ্চা আসে, তখন তার দুধ দুটি আও বেশি ফুলে গিয়ে একদম ঢোল হয়ে যায়, এর ভিতরেই তখন দুধ তৈরি হতে শুরু করে।

আমার মনে হছে না যে তোমার বুকের এই দুধ দুটি এর চেয়ে বড় হতে পারে!-আহসান অবিশ্বাসের গলায় বললো।

সাবিহা হেসে উঠলো ছেলের কথা শুনে, এখন তো বড় হবে না, তবে তুই যখন আমার পেটে ছিলি, তখন এই গুলি আরও অনেক বড় বড় ছিলো...-মায়ের কথা শুনে আহসানের চোখ বড় হয়ে গেলো।

তাহলে তোমার দুধ দুটি আমাকে আবার একটু দেখাও না,-আহসান আবার ও আবদার করলো, মানে শুধু আমাকে শিখানোর জন্যে, মানে যেটা শিখাচ্ছো, সেটা সামনে থাকলে কথা মনে থাকে ভালো মত, তুমি এ তো বলো...

খুব ছোট প্যাচ দিলো আহসান, কিন্তু সাবিহা জানে যে ছেলের এমন আবদারে ওর মোটেই সাড়া দেয়া উচিত না, কিন্তু এই যে এখন ওর ছেলে ওর সামনে তার বিশাল বড় আর মোটা লিঙ্গটা ওর দিকে তাক করে রেখেছে, ওটাকে নড়তে দেখে ওর নিজের ও কি ছেলের সামনে নেংটো হয়ে যেতে ইচ্ছে করছে? সাবিয়াহ নিজেকে যুক্তি ডিলো যে, ছেলে তো একবার ওগুলি দেখেছেই, আবার দেখলে ক্ষতি কি?

সাবিয়াহ ওর পড়নের গেঞ্জিটাকে ওর দুই হাত উঁচু করে শরীর উপরের দিকে টান করে ধরে খুলে ফেললো। সেই খোলার কাজের সময় ওর দুধ দুটি এমন সুন্দর ভাবে নড়ে উঠলো যে আহসানের নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে গেলো, ওর কাছে মনে হচ্ছিলো যে ওর মনে হয় এখনই বীর্যপাত হয়ে যাবে। সে তাড়াতাড়ি ওর লিঙ্গের উপর থেকে হাত সরিয়ে নিয়ে কামনার দৃষ্টিতে ওর মায়ের দুধ দুটিকে দেখতে লাগলো। সাবিহা জানে যে প্রতিটি ছেলের কাছেই মেয়েদের বক্ষ যুগলের আকর্ষণ সীমাহীন, তাই আহসানের এই প্রতিক্রিয়ায় চমকালো না সে। যদি ও ওর দুধের বোঁটা দুটো ফুলে এমন বড় আর শক্ত হয়ে গেছে এখনই।

ওহঃ আম্মু, তোমার দুধের বোঁটা কি এখন শক্ত হয়ে আছে? নাকি নরম হয়ে আছে?-আহসান জানতে চাইলো।

শক্ত-সংক্ষেপে উত্তর দিলো সাবিহা।

তার মানে, তুমি ও এখন উত্তেজিত, তাই না আম্মু, ঠিক আমার মতই...-আহসান দুষ্ট দুষ্ট হাসি দিয়ে বললো, ওর শরীরের উত্তেজনা কিছুটা কমেছে, তাই সে আবার ও নিজের লিঙ্গটাকে মুঠো করে ধরে ওর মায়ের দিএক তাক করে রাখলো।

সাবিহা ছেলের কথার কোন উত্তর দিলো না, বরং ওদের চলমান কথার ভিতরে ঢুকে গেলো। শুন যা বলছিলাম, মেয়েদের দুধ হচ্ছে ফোরপ্লে করার একটা বিশেষ অঙ্গ আর এটা ছাড়া ফোরপ্লে হয়ই না বলতে গেলে...


ফোরপ্লে?-আহসান ওর ভ্রু কুচকে জানতে চাইলো।

Reply With Quote
  #86  
Old 1 Week Ago
fer_prog fer_prog is offline
sex must be done with love
  Annual Masala Awards: Thread of the Year      
Join Date: 25th August 2009
Location: Dhaka, Bangladesh
Posts: 1,663
Rep Power: 27 Points: 8426
fer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autographfer_prog has celebrities hunting for his/her autograph
UL: 576.22 mb DL: 1.19 gb Ratio: 0.47

“এটা হচ্ছে, একজন পুরুষ যখন মেয়ের সাথে সেক্স করতে যায়, তখন, আগে তারা দুজন দুজনকে যৌনতার জন্যে পুরোপুরি প্রস্তুত করে নেয়, এটাকেই ফোরপ্লে বলে। পুরুষ মানুষ যেমন চট করে উত্তেজিত হয়ে যায়, তেমনি, একজন মেয়ে মানুষ চট করে উত্তেজিত হয় না, ওকে দুধে আদর করার মাধ্যমে ধীরে ধীরে উত্তেজিত করে তুলতে হয়। মেয়েদের দুধের চারপাশে, বুকে, ঘাড়ে ছেলেদের আদর চুমু এসব ও ফোরপ্লে এর একটা অংশ। মেয়েদের ঘাড় আর কানের লতি খুব উত্তেজনার জায়গা, ওখানে ছেলেদের নিঃশ্বাস পড়লে ও মেয়েরা উত্তেজিত হয়ে যায়।”-বলে বলে সাবিহা নিজের ঘাড়ে হাত বুলিয়ে নিলো, ”আসলে কি বলবো, মেয়েদের সমস্ত শরীরই ছেলেদের ঠোঁট আর জিভের স্পর্শে উত্তেজিত হতে থাকে, মানে মেয়েদের পেট, পিঠ, দুই উরু, পায়ের পাতা ও খুব যৌন সংবেদনশীল, আর সবার উপরে আছে মেয়েদের যোনি”-কথাটা বলতেই সাবিহা অনুভব করলো যে ওর নিজের যোনি ও মুচড়ে মুচড়ে রস ছাড়তে শুরু করেছে, ছেলেকে যৌন শিক্ষা দিতে দিতে, নিজের শরীরের ভালোলাগার জায়গাগুলির বর্ণনা দিতে দিতে।

“ওটা আমি কোনদিন দেখি নি, মানে গতকাল একটু দেখছিলাম, কিন্তু তুমি তোমার দুই পা এমনভাবে একত্র করে রেখেছিলে, যে আমি আসলে তোমার যোনি একটু ও দেখতে পারি নাই...”-আহসান বললো, যদি ও আজ সকালে ওর মায়ের ফাক করে রাকাহ দুই পায়ের মাঝে বসে যোনীর উপর সে বীর্যপাত করে এসেছে, কিন্তু সাবিহার যোনীর উপরে বেশ চুল থাকার কারণে ওটা ভালো করে দেখতে পায় নি।

“তোকে তোর কল্পনাশক্তির ব্যবহার করতে হবে ওটাকে বুঝতে হলে...”-সাবিহা বললো, আসলে ছেলেকে বুঝিয়ে দিলো যে, সে কোনভাবেই ছেলেকে নিজের যোনি দেখাতে রাজি নয়।

“কোন জিনিষ না দেখলে সেটাকে কল্পনায় আনা তো খুব কঠিন আম্মু...”-আহসান যুক্তি দিলো।

সাবিহা ওর মাথা দু দিকে নাড়লো, এর মানে সে আহসানকে নিজের যোনি খুলে দেখাবে না, “আগে আমি কি বলি শুন, ভালো করে, একটা যোনীর বেশ কয়েকটা অংশ আছে, একটা হচ্ছে বাহিরের ঠোঁট যেটাকে ইংরেজিতে বলে লেবিয়া মেজর, একটা হচ্ছে ভিতরের ঠোঁট যেটাকে ইংরেজিতে বলে লেবিয়া মাইনর, ভিতরের ঠোঁটের চেয়ে বাহিরের ঠোঁট বেশি স্পর্শকাতর, তবে ভিতরের ঠোঁট একদম রক্তে পূর্ণ থাকে, যখন মেয়েরা উত্তেজিত হয়, তখন ভিতরের ঠোঁটে রক্ত প্রবাহ অনেক বেড়ে যায়, তখন সেটা যোনিকে সেক্সের জন্যে প্রস্তুত করে, মানে সঙ্গমের জন্যে... “–সঙ্গম শব্দটা বলতেই যেন সাবিহার যোনি নিজে থেকেই উত্তেজিত হতে শুরু করলো কোন প্রকার স্পর্শ ছাড়াই। ছেলের দিকে তাকিয়ে ওর হা করে ওর দিকে তাকিয়ে থাকা মুখ দেখে সাবিহা বুঝতে পারলো জে, ছেলে কিছুই বুঝছে না। ওর মনের ভিতরে দুষ্ট দুষ্ট চিন্তা আসতে লাগলো, ওর যা করা উচিত সেটা করা কি ঠিক হবে, নিজের মনের সাথে যুদ্ধ চালাতে লাগলো সাবিহা। ওর বুক ধড়ফড় করতে লাগলো, নিঃশ্বাস যেন আটকে যেতে লাগলো বুকের ভিতরে। সে যা এখন করতে যাচ্ছে সেটা এক বড় ধরনের পাগলামি, এটা চরম খারাপ কাজ হয়ে যাবে, কিন্তু মনের কোন কথাকে পাত্তা না দিয়ে সাবিহা সোজা উঠে দাড়িয়ে গেলো আর চট করে ওর পড়নের জাঙ্গিয়া খুলে ফেললো, মনের সব কথার বিরুদ্ধে গিয়ে। আহসান চোখে বড় করে হা করে তাকিয়ে রইলো, এর পরে একটু উঁচু পাথরের উপর উঠে নিজে পেসাব করার ভঙ্গীতে বসে গেলো সাবিহা, আর ছেলেকে নিচে বসিয়ে দিলো যেন নিচ থেকে ওর হা করে মেলে ধরা যোনিকে ছেলে ভালো করে দেখতে পারে। আহসান ওর হাতকে সরিয়ে নিলো লিঙ্গের উপর থেকে, না হলে যে কোন মুহূর্তে ওর বীর্যপাত হয়ে যেতে পারে।

সাবিহা ওর দুই হাত পিছনে নিয়ে নিজের শরীরকে কিছুটা হেলান দেয়ার মত করে হেলিয়ে দিলো, যার ফলে ওর যোনি আরও ভালোভাবে আহসানের সামনে প্রকাশিত হলো, সাবিয়াহ জানে ও যা করছে, এটা একদম অনুচিত, কিন্তু নিজের ছেলেকে শিখানোর জন্যে যে কোন কিছু যে সে করতে প্রস্তুত, সেটা এর চেয়ে ভালোভাবে বএল দেয়ার এর কি থাকতে পারে। সাবিহার দুই কান ভো ভো করতে লাগলো, আশেপাসের কোন শব্দ যেন ওর কান পর্যন্ত পৌঁছলো না, একমাত্র নিজের বুকের হৃদপিণ্ডের ধুকপুকানি শব্দ ছাড়া। আহসানের চোখের দৃষ্টি ওকে বলে দিচ্ছে, যে ওর ছেলে ও এটা প্রত্যাশা করে নাই ওর কাছে থেকে। বেশ কয়েক মিনিট কেটে গেলো এভাবেই, কোন কথা নয়, আহসান তাকিয়ে দেখছে ওর মায়ের যোনি, আর সাবিহা একবার ছেলের দিকে তাকাচ্ছে, আবার এদিক ওদিক তাকাচ্ছে নিজের উত্তেজনাকে কমানোর জন্যে। ওর কাছে মনে হতে লাগলো, ওর নিজের যোনিকে স্পর্শ না করলে ও যে কোন সময়ে ওটা থেকে লাভা উদগিরন শুরু হয়ে যেতে পারে। ওর যোনি এই মুহূর্তে ঠিক যেন ভিসূভিয়াস আগ্নেয়গিরি।

আরও প্রায় ৫ মিনিট চলে গেলো, আহসান কোন কথা বলছে না, ওর নিজের উত্তেজনা ও একদম চরম সীমায়। কথা বলতে গেলেই যদি বীর্যপাত হয়ে যায়, সেই ভয়ে সে কথা বলতে পারছে না। সাবিহা ডাক দিলো ছেলেকে, “আরও কাছে এসে দেখ সোনা, এতো দূরে কেন তুই, কাছে আসলে তোকে আমি ভালো করে বুঝাতে পারবো...”

মায়ের আদর মাখা কামনা ভরা গলার আহবান শুনে আহসান আরও কাছে চলে এলো, ওর মুখ এখন সাবিহার যোনীর উচ্চতা বরাবর আছে, আর ওর মুখ আর যোনীর মাঝের দূরত্ব ৪/৫ ইঞ্ছির মত হবে।


যখন কথা বলতে শুরু করলো, তখন সাবিহার গলা পুরো কাঁপছিলো, “এই জায়গাটা পুরোটাকে বলে যোনি, এর এই গুলি হলো বাহিরের ঠোঁট”-সাবিয়াহ নিজের যোনির উপরে হাত বুলিয়ে ছেলেকে শিখাতে লাগলো, “ভিতরে আছে ভিতরের ঠোঁট, এই যে এই দুইটা, দুই পাশের...মেয়েরা যখন উত্তেজিত হয়ে যায়, তখন ভিতরের ঠোঁট দুটি ফুলে যায়, ওটা ভিজে যেতে থাকে...”-সাবিহা বুঝিয়ে বললো ছেলেকে।

“ওগুলি তো এখনই ফুলে আছে মনে হচ্ছে আর ভিজে ও আছে”-আহসান বলে উঠলো, কিন্তু সেই কথায় সাবিহা একটু ও লজ্জা পেলো না, সে স্বীকার করে নিলো, “হুম, এই দুটি এখন ফুলে ভিজে আছে...”- এর পরে সাবিহা ওর যোনীর উপরিভাগের চামড়া সরিয়ে ওর ক্লিট বের করে আনলো, আর ছেলেকে দেখতে বললো ওটাকে, “এই ছোট জিনিষটাকে বলে ক্লিট বা ভঙ্গাকুর, এটা হচ্ছে একটি নারী দেহের সবচেয়ে বেশি স্পর্শকাতর জায়গা, এটাকে দেখতে যেন তোর লিঙ্গের মাথার মত মনে হবে, কিন্তু খুব ছোট এই জিনিষটা মেয়েদের শরীরের সমস্ত উত্তেজনার কেন্দ্রবিন্দু...এটাকে আঙ্গুল দিয়ে ঘষলেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়তে সুউর করে সমস্ত শরীরে...”-সাবিয়াহ ইচ্ছে করেই ছেলেকে দেখানর জন্যে ওটাকে ঘষে দিলো, আর সাথে সাথে ওর শরীরে একটা কাঁপুনি হলো, সেটা আহসান দেখলো।

“তোমার যোনিটা খুব সুন্দর আম্মু...”-আহসান মুগ্ধ গলায় ওর মায়ের যোনীর প্রশংসা করলো।

“ধন্যবাদ সোনা...”-এই বলে সাবিহা আবারো বেশ কয়েকবার ওর ক্লিট ঘষে নিজের শরীরকে কাঁপালো।

“তুমি যখন আমার মত মাষ্টারবেট করো, তখন তুমি ও নিজে তোমার এই ক্লিটকে ঘষো, তাই না আম্মু?”-আহসান বলে উঠলো। ওর লিঙ্গের মাথা দিয়ে একটু পর পর মদন রস বের হচ্ছে।

“হুম, সেটা ও করি, আবার মাঝে মাঝে আমি এখানে একটা বা দুটো আঙ্গুল ঢুকিয়ে দেই, এটা ও আমার চরম সুখকে পেতে সাহায্য করে...”-এই বলে সাবিহা ওর দুটো আঙ্গুল ঢুকিয়ে দিলো ওর যোনীর ভিতরে। ছেলের লাল হয়ে যাওয়া মুখের দিকে তাকিয়ে সাবিহা ছেলেকে যেন নিজের যৌনতা প্রদর্শন করছে, এমনভাবে দেখাতে লাগলো। যোনীর ভিতরে আঙ্গুল ঢুকতেই সাবিহা নিজে জোরে গুঙ্গিয়ে উঠলো, ওর চোখ মুখ ঘোলা হয়ে গেলো। আহসান ওর মায়ের যোনীর দিকে তাকিয়ে ওর লিঙ্গকে খেঁচতে শুরু করলো। সেদিকে আশ্লেষ মাখা নয়নে তাকিয়ে সাবিহা ও নিজের যোনীর ভিতরে আঙ্গুল ঢুকাতে আর বের করতে লাগলো। সাবিহার আঙ্গুলে ভিজা রস দেখে জানতে চাইলো আহসান, “আম্মু, তুমি কি পেসাব করে দিয়েছো?”

“না, সোনা, এগুলি পেসাব না, এগুলি হচ্ছে কাম রস, বা মদন রস, যোনি যখন সঙ্গমের জন্যে পুরো প্রস্তুত হয়ে যায়, তখন এটা দিয়ে এমন রস বের হতে থাকে, এই রস খুব আঠালো হয়...””-সাবিহা ছেলের চোখের সামনে আঙ্গুল নিয়ে দেখিয়ে আনলো ওকে নিজের যোনীর রস।

“তার মানে তোমার যোনি এখন সঙ্গমের জন্যে পুরো প্রস্তুত, তিয়া না, ঠিক আমার লিঙ্গের মত...”-আহসান বললো।

“হ্যাঁ রে সোনা, একদম প্রস্তুত, যেমন তোর লিঙ্গ প্রস্তুত, তেমনি আমার যোনি ও প্রস্তুত...”-সাবিহা কথাটা বলতে গিয়ে যেন ওর গলা ধরে এলো, ওর মুখের কথা থেমে গেলো।

এইবার সাবিহা ওর দুই হাত দিয়ে নিজের যোনিকে ফাক করে ধরলো, “এই দেখ, এই ছোট ছিদ্রটা হচ্ছে পেসাবের রাস্তা, এখান দিয়ে পেসাব বের হয়, আর এই বড় ফুটোটা হচ্ছে যোনীর আসল রাস্তা, এটা দিয়ে ছেলেদের লিঙ্গ ঢুকে মেয়েদের যোনীর ভিতরে...আর এই দুই পাশের মাংসগুলি ছেলেদের লিঙ্গকে চেপে ধরে আদর করে, কামড়ে কামড়ে চিপে ধরে ছেলেদের লিঙ্গকে, এর ফলে ছেলেদের বীর্যপাত হয়ে যায়...একদন যখন তুই কোন মেয়ের সাথে সেক্স করবি, তখন ওর এখান দিয়েই তোর লিঙ্গটা ঢুকিয়ে দিবি, একদম পুরোটা, অবশ্য ওই মেয়েটা যদি তোর পুরো লিঙ্গকে নিজের যোনিতে নিতে পারে তাহলেই পুরোটা ঢুকাবি, জোরে করে কিছু করবি না, লিঙ্গ ঢুকিয়ে তোর কোমর সামনে পিছনে করে ঠাপ দিবি ওই মেয়ের যোনিতে, এর পরে যখন তোর চরম সময় আসবে, তখন পুরোটা ঢুকিয়ে দিয়ে যোনীর একদম ভিতরে বীর্যপাত করবি।”-সাবিয়াহ এই অপ্রয়োজনীয় কথাগুলি কেন বলছে সে জানে, না, এটা কি ছেলেকে বশ করার মতলব নাকি শুধু নিজের যৌন উত্তেজনার প্রলাপ, কেউ সঠিক বলতে পারে না।


Last edited by fer_prog : 1 Week Ago at 11:03 PM. Reason: new line add

Reply With Quote
  #87  
Old 1 Week Ago
crazyrex crazyrex is offline
 
Join Date: 21st April 2017
Location: Dhaka
Posts: 53
Rep Power: 1 Points: 13
crazyrex is an unknown quantity at this point
Send a message via Skype™ to crazyrex
অসাধারণ। প্রসংশা না করে পারছি না।এরকম উত্তেজক লেখা যে পাব তা কল্পনাও করিনি।সত্যি মায়ের শিক্ষা অসাধারণ হচ্ছে। পরের আপডেটের অপেক্ষায় রইলাম।

Reply With Quote
  #88  
Old 1 Week Ago
faakibaaj faakibaaj is offline
 
Join Date: 20th April 2017
Posts: 61
Rep Power: 1 Points: 128
faakibaaj is beginning to get noticed
দাদা দারুন দিয়েছেন.....সেক্স এডুকেশনেই সেক্স উঠে গেল......চরম সিডাকশন....চালিয়ে যান
______________________________

Reply With Quote
  #89  
Old 1 Week Ago
sumon shil sumon shil is offline
 
Join Date: 18th August 2016
Location: bangladesh
Posts: 68
Rep Power: 2 Points: 42
sumon shil is an unknown quantity at this point
অসাধারণ দাদা লেখা পড়তে পড়তে উত্তেজনা চরম শিখরে
______________________________
প্রতিদিন একবার আসি আপডেট এর আশায়

Reply With Quote
  #90  
Old 1 Week Ago
crack999 crack999 is offline
 
Join Date: 25th January 2010
Posts: 115
Rep Power: 18 Points: 400
crack999 has many secret admirerscrack999 has many secret admirers
great going... fan'mothafucking'tastic story... keep posting...

Reply With Quote
Reply Free Video Chat with Indian Girls


Thread Tools Search this Thread
Search this Thread:

Advanced Search

Posting Rules
You may not post new threads
You may not post replies
You may not post attachments
You may not edit your posts

vB code is On
Smilies are On
[IMG] code is On
HTML code is Off
Forum Jump


All times are GMT +5.5. The time now is 12:19 AM.
Page generated in 0.10420 seconds